শিশুবিদ্যালয়ের পিতা-মাতাদের জন্য পরামর্শ

আপনি যদি কোনো প্রি-স্কুলারের পিতা-মাতা হন তাহলে মাঝে মাঝে আপনার ছোট শিশুর পিছনে লেগে থাকাটা আপনার ক্ষেত্রে প্রতিযোগিতামূলক এবং ক্লান্তিকর হতে পারে| বাচ্চাদের লালনপালন করা সবচেয়ে বেশি প্রতিযোগিতামূলক কাজ, তবে এটি আপনাকে একাই করতে হবে না| 

আপনার সন্তান এবং তাদের স্কুল-এর সাথে বিজড়িত হওয়া এবং পার্থক্য সৃষ্টি করার জন্য কিছু সহজ উপায় রয়েছে| আপনার সন্তানের শিক্ষার সাথে বিজড়িত হওয়া বিভিন্ন উপায়ে লাভ প্রদান করে| পিতা-মাতার বিজড়িত হওয়া স্কুলগুলিকে শক্তিশালী করে এবং সন্তানদের প্রদর্শন করে যে আপনি শিক্ষার মূল্য দেন| আমরা কিছু প্যারেন্টিং পরামর্শ দিচ্ছি যা আপনার ছোট সন্তানের লালনপালন করার ক্ষেত্রে আপনাকে সাহায্য করবে| 

বাড়ি থেকে স্বেচ্ছায় সেবা করুন-

প্রেজেন্টেশন এবং আরো অনেক কিছুর মত পাঠের বিষয়বস্তু তৈরি করতে সাহায্য করুন| আপনি পিটিএ-তে ও যোগদান করতে পারেন| আপনার স্বেচ্ছাসেবী ব্যবহার বাড়িতে নিয়ে আসা আপনার সন্তানকে প্রদর্শন করে যে স্কুল গুরুত্বপূর্ণ| এটি শিক্ষকের সাথে আপনার সংযোগ শক্তিশালী করতে ও সাহায্য করবে|

স্কুলের ইভেন্টে হাজির থাকা-

ভার্চুয়াল ওপেন হাউস, আর্ট শো, এবং অন্যান্য স্কুল ইভেন্ট-গুলিতে হাজির থাকবেন| কর্মীদলের সদস্য এবং অন্যান্য পিতা-মাতার সাথে ইন্টারেক্ট করার জন্য স্কুল ইভেন্টগুলি একটি ভাল স্থান|

আপনার সন্তানের সাথে স্কুল সম্পর্কে কথা বলুন-

“তোমার ক্লাস কেমন ছিল?” সেটি বলার পরিবর্তে, জিজ্ঞাসা করুন, “আজ ক্লাসে যা ঘটেছে তার মধ্যে সবচেয়ে সেরা জিনিসটি কি ছিল?” এবং “আমাকে একটি নতুন জিনিস বল যা তুমি আজ শিশুবিদ্যালয়ে শিখেছ|”

প্রযুক্তির যুগে সন্তানের লালনপালন খুব মুশকিল| পিতা-মাতার সঠিক প্রযুক্তিগত জ্ঞান থাকলে এই সমস্ত কাজগুলি আরো কার্যকরভাবে করা যেতে পারে| কখনো কখনো, আপনি আপনার সন্তানের কর্মশক্তির স্তর এবং কৌতুহল-এর সমতালে থাকার ক্ষেত্রে জটিল পরিস্থিতির সম্মুখীন হতে পারেন| যদি আপনার প্যারেন্টিং শৈলীকে বর্ধিত করার ক্ষেত্রে সাহায্যের প্রয়োজন হয় তাহলে এই প্যারেন্টিং পরামর্শগুলি দেখবেন|   

একবিংশ শতাব্দীর ডিজিটাল নেটিভ সম্পর্কে আমাদের প্যারেন্টিং ওয়েবিনারে টিউন করুন-https://www.dellaarambh.com/webinars/