5 টি কারণে ঈ-লার্নিং আপনার সন্তানদের লাভ করবে

 

আমরা অনলাইন শিক্ষণে ভারী আকস্মিক বৃদ্ধি দেখছি| রিপোর্ট অনুযায়ী, ভারতে অনলাইন শিক্ষার বাজার বাজার  2024  সাল অবধি INR 360 বিলিয়ন পর্যন্ত পৌঁছে যাবে|

 

মাতা-পিতা হিসাবে, আপনার ও ঈ-লার্নিং এবং এটির আপনার সন্তানের উপরে প্রভাব সম্পর্কে প্রশ্ন থাকতে পারে| আপনার সন্তানদের শেখার ক্ষমতা ও সামগ্রিক অভিজ্ঞতাকে বাড়ানোর পাশাপাশি তারা নানারকম লাভ পেতে পারে|

 

লাভগুলি নিম্নে রয়েছে-

 

আপনার সন্তানকে আরো বেশি দায়িত্বশীল বানায়

ঈ-লার্নিং এর সময়, আপনার সন্তানকে অ্যাসাইনমেন্ট জমা দেওয়া এবং ক্লাসের আলোচনায় অংশগ্রহণ করা-র সম্পর্কে মনে করিয়ে দেওয়ার মত কোনো বাস্তব উপস্থিতি বিদ্যমান থাকে না| এটি তাদেরকে অল্প বয়সেই স্বচালিত বানিয়ে দেবে|

 

কৌতুহল এবং শেখার জন্য তীব্র ইচ্ছা প্রবর্তিত করে

অনলাইনে তথ্যের ভান্ডার উপলব্ধ রয়েছে| অনলাইন শিক্ষণের বিভিন্ন ধরন অ্যাক্সেস করে আপনার সন্তান যে বিষয়গুলি জানতে আগ্রহী বা যার সম্পর্কে শিখতে আগ্রহী সেগুলি সম্পর্কে তথ্য অনুসন্ধান করতে পারে| 

 

ছেলে-মেয়েরা আরো বেশি সংঘটিত হয়

ক্লাসের ফাইলগুলির নিয়ন্ত্রণ, অন্য ছাত্র-ছাত্রীদের সাথে সমন্বয়সাধন, এবং অ্যাসাইনমেন্ট জমা দেওয়ার মাধ্যমে, আপনার সন্তান সাংগঠনিক দক্ষতার সরাসরি অভিজ্ঞতা প্রাপ্ত করবে| এটি তাদেরকে অল্প বয়স থেকে কাজের ক্রম নির্ধারন সম্পর্কে ও শেখাবে|

 

ব্যক্তিগতকৃত শিক্ষণ

অডিও, ভিজ্যুয়াল, বা টেক্সট-এর মত শিক্ষণের বিভিন্ন উপায়গুলি সহ, আপনার সন্তান তাদের সুবিধামত পদ্ধতিতে শিখতে পারে| তারা অনলাইনে শিক্ষক-শিক্ষিকাদের সাথে যোগাযোগ বা নিজেরাই সমাধান খুঁজতে চেষ্টা করে তাদের সন্দেহগুলির সমাধান পেতে পারে|

 

বিনোদনের পরিবর্তে শিক্ষার জন্য প্রযুক্তির ব্যবহার

আপনি যদি চিন্তায় থাকেন যে আপনার সন্তান সবসময় সোশ্যাল মিডিয়া প্লাটফর্মে থাকে তাহলে ঈ-লার্নিং সেই চিন্তার উপশম করবে| অনলাইনে উপলব্ধ অসংখ্য শিক্ষার সুযোগ-সুবিধার মাধ্যমে তারা বিনোদন ছাড়াও অন্যন্য উদ্দেশ্যগুলির জন্য প্রযুক্তির ব্যবহার করবে|

 

আপনার সন্তানদের শিক্ষার এই ধরণটির সাথে মানিয়ে নেওয়ার জন্য প্রোৎসহিত করুন, কারণ এটি তাদের বাকি জীবনের জন্য সাফল্যের গুণ এবং উচ্চাকাঙ্খার মনোভাব বিকশিত করতে সাহায্য করবে|