#DigiMoms – এটি আপনার জন্য একটি গাইড!

 

আপনি আপনার ছোট সন্তানের একমাত্র সুপারউইম্যান এবং রোল মডেল উভয়ই| এটিও ভুলবেন না যে আপনি তাদের #DigiMom| তাহলে আপনি এটি কিভাবে করবেন?

 

1. উদারতা পরবর্তী কালে পরিশোধ করে

উদারতা আপনার গঠন করে, হ্যাঁ আপনার!

একজন মা হিসাবে, আপনি জেগে থেকে যখন আপনার ছোট সন্তানকে ঘুম পাড়ান – প্রত্যেক মিনিট আপনার উদারতার সাক্ষ্য| আপনার সন্তান নিশ্চয়ই অনেক জিনিসের দাবি করবে এবং স্পষ্টত প্রযুক্তি-সম্পর্কিত অনুরোধগুলি কিছুটা কঠিন হতে পারে| আপনার সন্তানের মনে হয় যে তার কথা শোনা হচ্ছে এটি সুনিশ্চিত করার জন্য, প্রতিদিন প্রযুক্তি-সম্পর্কিত সময়ের ব্যবস্থা করুন| এটিতে পিসি এবং মোবাইল উভয়ই অন্তর্ভূক্ত থাকতে পারে| যখন আপনার সন্তান বুঝতে পারবে যে এই সময়টি প্রযুক্তির সময় তারপর কোন অপ্রত্যাশিত দাবি হবে না|

 

2. ধৈর্য হল দৈহিক শক্তি – এটি গড়ে তুলুন

এটি বিশেষত পিসিতে আপনার সন্তানের জন্য সঠিক পড়াশোনার সংস্থান নির্বাচনের সময় যথাযথ হয়| আপনার সন্তানকে ব্যবহার করতে দেওয়ার আগে প্রত্যেকটি ওয়েবসাইট এটি সুনিশ্চিত করার জন্য দেখুন যে এটিতে এরূপ কোন তথ্য নেই যা আপনি আপনার ছোট সন্তানকে দেখতে দিতে চান না| আপনাকে আপনার সন্তানের গল্প থেকে সত্য পৃথক করার পদ্ধতি শিখিয়ে “মেকি” সংবাদ এবং ডেটা সম্পর্কেও সাবধান হতে হবে|

 

3. মনোযোগী হন

আপনার সন্তানের প্রশ্ন রয়েছে এবং হয় আপনি সেগুলির জবাব দেবেন নয়ত ইন্টারনেট দেবে| ইন্টারনেট ত্বরিত জবাব দেবে কিন্তু সেটি ঠিক জবাব না ও হতে পারে| এই পরিস্থিতিতে, এটির সবচেয়ে ভালো উপায় হল সাধারণভাবে উপস্থিত থাকা এবং শোনা|

প্রত্যেক মা একটি চেকলিস্টের সাহায্য নেয় এবং ডিজিটাল প্যারেন্টিং কোন ভিন্ন জিনিস নয় – আপনার চেকলিস্ট সঠিক বানান এবং অল্প সময়ের মধ্যেই আপনি একজন ডিজিটাল প্রো অভিভাবক হয়ে যাবেন! এরূপ করার জন্য মুখ্য জিনিসটি হল কিছু সময় বের করা এবং আপনার ও আপনার সমগ্র পরিবারের জন্য পিসি যা কিছু অফার করে তার অধিকাংশ উপভোগ করা| ডিজিটাল অভিভাবকত্ব সুখময় হোক!