5 টি জীবনের দক্ষতা যেটি আপনার ছেলেমেয়েদের উচ্চ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে পৌঁছানোর আগে জানা প্রয়োজন

 

"জীবন দক্ষতা" হলো নিজেকে খাপ খাওয়ানো এবং যথার্থ আচরণের জন্য মনোসামাজিক সক্ষমতা যেটি ব্যক্তিকে দৈনন্দিন জীবনের চাহিদা এবং চ্যালেঞ্জ-গুলোর সাথে সক্রিয়ভাবে মোকাবেলা করতে সক্ষম করে|

আপনার ছেলেমেয়েদের উচ্চ মাধ্যমিক বিদ্যালয়য়ে পৌঁছানোর আগে নিম্ন পাঁচটি জানা উচিত:

1) সময়মত ঘুম থেকে ওঠা

এই মুহুর্তে আপনি হলেন তাদের “এলার্ম ঘড়ি” কিন্তু যখন আপনার ছেলেমেয়েরা ছাত্রাবাসে বসবাস করবে অথবা কাজে করবে তখন কি আপনি এরূপ করতে সক্ষম হবেন? আপনার ছেলেমেয়েদের সাধারনত সময় মত ও কোন সাহায্য ছাড়া ঘুম থেকে উঠতে শেখানো জীবনের একটি অত্যাবশ্যক দক্ষতা| স্কুল প্রতিদিন একই সময়ে শুরু হওয়া একটি ভালো জিনিস!

2) আহার তৈরি করা

যখন আপনার ছেলেমেয়েরা আপনাকে তাদের খাবার তৈরি করার জন্য না পায় তখন সাধারনত খাবার অর্ডার করা হয় অথবা বাইরে গিয়ে খাবার খাওয়া হয়| মাঝেমাঝে, এরূপ করা ভালো কিন্তু স্বাস্থ্যকর, বাড়িতে বানানো খাবারের চাইতে কোন কিছুই ভালো নয়| আপনার ছেলেমেয়েদের দ্বারা ছোট ছোট কাজ করানো যেমন চা-এর জন্য জল ফোটানো দিয়ে শুরু করুন এবং ধীরে ধীরে তাদের শেখান যাতে আপনার ছেলেমেয়েরা কারোর সাহায্য ছাড়া তাদের নিজেদের জন্য পুষ্টিকর খাবার বানাতে পারে|

3) পরিবারের ছোট সদস্যদের যত্ন করা

এটি এরূপ জিনিস যেটি উপেক্ষা করা সম্ভব না কারণ দায়িত্বশীল হওয়ার শুরুপাত পরিবার থেকে হয়| ছোট ছোট ভাই অথবা বোন, খুড়তুতো-জেঠতুতো অথবা প্রতিবেশীর ছেলেমেয়েদের যত্ন নেওয়া, কারোর প্রতি এবং লোকরা যারা আপনাকে বিশ্বাস করে তাদের প্রতি দায়িত্বশীল হওয়ার সূত্রপাত – যেটি বাস্তব জগতের জন্য অত্যন্ত প্রয়োজনীয় জিনিস যদিও সেটি মাত্র এক ঘন্টার জন্য হয়|

4) পরিকল্পনা তৈরি করে সেটি মেনে চলুন

আপনার সন্তানের ক্ষেত্রে সর্বাধিক গুরুত্বপূর্ণ জীবন দক্ষতাটি হল স্কুল, টিউশন, খেলাধুলা, সামাজিক জীবন এবং বাড়ির দায়িত্ব পরিবহন করেও দিনের শেষে ক্লান্ত না হওয়া| সময়কে প্রাথমিক পর্যায়ে নিয়ন্ত্রণ করার পদ্ধতি শেখা টা আপনার সন্তানকে পরিণত বয়সে চ্যালেঞ্জগুলো গ্রহণ করার জন্য তৈরি করবে|

5) পিসি ভালোভাবে ব্যবহার করতে শেখা

ডিজিটাল অভিভাবক হিসেবে, আপনি জানেন যে প্রযুক্তি এড়িয়ে চলা সম্ভব নয়| বাড়িতে অথবা স্কুলে যেখানেই হোক না কেন – আপনার শিশুর প্রাথমিক শিক্ষণ গ্যাজেট হল পিসি| সময় এবং অভ্যাসের সাথে সাথে, আপনার সন্তান এটি অধ্যয়ন, কোন নতুন শখ এবং এমন কি তাদের বিনোদন যাই হোক না কেন সেটির জন্য ব্যবহার করা শিখে যাবে|

কোনো সংশয় ছাড়া, 2018 হল পিসির বছর!