টেক-স্যাভি ছেলে/মেয়ে কিভাবে বড় করা যায়

“IT+IT=IT

ভারতের প্রতিভা + তথ্য প্রযুক্তি = আগামীদিনের ভারত”

-নরেন্দ্র মোদী

আজকের যুগে, সামাজিক জগতকে প্রযুক্তির মাধ্যমে বেশি আর ব্যক্তিগত আচরণের মাধ্যমে কম বর্ণনা করা যায়| অধিকাংশ ছেলে/মেয়েরা তীক্ষ্ণ, পর্যবেক্ষণশীল এবং প্রযুক্তির ক্ষেত্রে অভিযোজনমূলক হয়| 

প্রযুক্তি কার্যকরভাবে এবং সর্বোত্তম পদ্ধতিতে ব্যবহৃত হওয়ার বিষয়ে সুনিশ্চিত হওয়ার জন্য, অভিভাবকদের সামঞ্জস্যপূর্ণ টেক-স্যাভি ছেলে/মেয়ে কে বড় করার সম্পর্কে কয়েকটি ইঙ্গিত মনে রাখা উচিত|

  • প্রযুক্তি-সম্পর্কিত আলোচনা সম্পর্কে তাদের বারবার বলুন– প্রযুক্তিগত সুবিধা সম্পর্কে আপনার ছেলে/মেয়ের সাথে আলোচনা করার জন্য প্রস্তুত থাকুন| পিসির প্রতি স্বাস্থ্যকর দৃষ্টিভঙ্গি সক্রিয়ভাবে প্রোৎসাহিত করুন, তারা অনলাইনে, বিশেষ করে সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহার করকালীন কি করছে সেটি উপলব্ধি করুন| তাদের মধ্যে দায়িত্ববোধ জাগরিত করার জন্য এগুলির ভালো এবং খারাপ বিষয় সম্পর্কে আলোচনা করুন|
  • শিক্ষামূলক ক্ষেত্রে প্রযুক্তির মাধ্যমে অংশগ্রহণ – ভারতে 5 থেকে 24 বছর বয়স্ক ছেলে/মেয়েদের বৃহত্তম জনসংখ্যা রয়েছে যা শিক্ষামূলক ক্ষেত্রে বিশাল সুযোগ প্রদান করে (ibef.org- জুলাই 2019)| ছাত্র/ছাত্রীরা তাদের উচ্চ শিক্ষা থেকে সর্বাধিক প্রযুক্তি বর্ধিত অভিজ্ঞতার প্রত্যাশা করে| প্রচুর বিষয়বস্তু, শিক্ষাগত ভিডিও, রিয়েল-টাইম টিউটরিং, সহজেই উপলব্ধ যা শিক্ষা প্রণালী কে সম্পূর্ণ নতুন পদ্ধতিতে রূপান্তরিত করেছে| আগে প্রত্যেক বিষয়ের জন্য ছাত্র/ছাত্রী কে বিভিন্ন শিক্ষকের কাছে যেতে হত কিন্তু রিয়েল-টাইম টিউটরিং-এর মাধ্যমে এক স্থানে থেকে তাদের সর্বোত্তম কোচিং পাওয়ার সুযোগ হয়ে যায়| 
  • প্রযুক্তি কে সাথী হিসাবে মনে করা – টেক-স্যাভি ছেলে/মেয়ের ক্ষেত্রে, সেরা স্বার্থের জন্য বাবহার করলে তাদের গ্যাজেট হল তাদের সাথী| একটি পিসি একটি মেশিনের চাইতে ও বড় বস্তু এটি শেখার একটি মাধ্যম, বিনোদনের একটি ফ্যাক্টরি, একটি মহান কথাকার এবং আরো অনেক কিছু!
  • সামঞ্জস্য তৈরি করা– প্রযুক্তির উপর দীর্ঘায়িত নির্ভরতার প্রতিকূল প্রভাব হতে পারে| সমস্ত তথ্য সত্যি হয় না, তবে কোন ছেলে/মেয়ের কাছে Google-এর জ্ঞান অভেদ্য বলে মনে হতে পারে| ছেলে/মেয়ের তাদের অভিভাবকদের আচরণ অবলম্বন করার ঝোঁক থাকে| সুনিশ্চিত করুন যে আপনি আপনার সামঞ্জস্য বজায় রাখেন এবং আপনি ব্যক্তিগতভাবে আপনার ছোট সন্তানের সাথে সময় কাটান| মনে রাখবেন যে আজকের শিক্ষণে পিসি একটি অপরিহার্য অংশ – একজন অভিভাবক হিসাবে আপনার পরিবর্তন কে মেনে নেওয়া উচিত এবং সঠিক পিসি বাছাই করার থেকে শুরু করে ছেলে/মেয়েদের বিকাশে সাহায্য করার জন্য এটির অংশ হন|