আপনার সন্তানের প্রতিদিন পড়া কেন উচিত

 

“আপনি যত বেশি পড়বেন, তত বেশি জিনিস জানতে পারবেন| আপনি যত বেশি শিখবেন, তত বেশি স্থানে যেতে পারবেন|”

- ড. সেয়াস

ড. সেয়াস মোটামোটি সংক্ষিপ্তভাবে জানিয়ে দিয়েছেন যে ছেলেমেয়েরা গল্প এত কেন ভালোবাসে| এটি রাত্রে শোয়ার সময় হোক অথবা রবিবার বিকালবেলা যখনই হোক না কেন, যে ছেলে-মেয়ে পড়তে ভালোবাসে সে ইতিমধ্যে জীবনে দীর্ঘ সফলতার পথে এগিয়ে চলেছে – এটির কারণ নিম্নে দেওয়া আছে:

 

কারণ #1

আপনার বয়স অনুয়ায়ী সন্তান যতই ছোট হোক না কেন, পঠন মস্তিষ্কের বাঁ দিকের কিছু অঞ্চলকে জাগরিত করে – যেগুলির মাধ্যমে যুক্তিসঙ্গত কাজ সম্পাদন করা হয়, যেমন বিজ্ঞান এবং গণিত|

এমনকি একদিনে মাত্র একটি অধ্যায় ও আপনার সন্তানের মধ্যে সুস্থ মস্তিষ্ক এবং ভাষার উন্নতি সুনিশ্চিত করবে, আপনাকে শুধু আপনার সন্তান কি পড়তে ভালোবাসে সেটি অনুসন্ধান করতে হবে!

 

কারণ #2

বিশ্ব অর্থনৈতিক ফোরাম-এর অধ্যয়ন অনুযায়ী কর্মসংস্থানে সাফল্যের জন্য সবচেয়ে শীর্ষস্থানীয় দক্ষতাগুলির মধ্যে একটি হল সৃজনশীলতা| গবেষণার একটি ক্রমবর্ধমান ক্ষেত্র সচরাচর ভাবে অধ্যয়নের মাধ্যমে উদ্ভূত কার্যকারিতা এবং সমস্যা সমাধানের উন্নতিতে জ্ঞানীয় বৈচিত্রতা, অথবা চিন্তার বিভিন্নতা-এর গবেষণা করে|

 

কারণ #3

নিজেকে ব্যক্ত করার জন্য বেঁচে থাকুন, অন্যদের প্রভাবিত করার জন্য নয়|”

অজানা

যদি আপনি আপনার ছেলেমেয়েদের নিজেদের স্পষ্টভাবে প্রকাশ করার জন্য উন্নতমানের শব্দভাণ্ডারের ব্যবহারে সক্ষম করাতে চান তাহলে তাদের পড়তে শেখান| যেহেতু একটি বই মূলত একজন লেখকের চিন্তাধারার অভিব্যক্তি – তাই এটি হল কোন ছেলে-মেয়ের অভিব্যক্তির জন্য একটি পরিকল্পনা

 

কারণ #4

যদি আপনি আপনার ছেলে-মেয়েকে অনুপ্রাণিত বোধ করাতে চান তাহলে অধ্যয়ন হল সেটির জন্য একটি উপায়| যেহেতু তারা বইয়ের চরিত্রগুলিকে আসন্ন চ্যালেঞ্জের সরাসরি মোকাবেলা করতে দেখে তাই তারা সেটির থেকে পালিয়ে যাওয়ার পরিবর্তে বিভিন্ন চ্যালেঞ্জ স্বীকার করতে পারবে|

তাহলে আপনি কি আপনার ছেলে-মেয়েকে পিসিতে বইগুলি পড়তে দিতে চান?

ভালো, অনলাইনে পড়ার জন্য এখানে কিছু বিস্ময়কর ওয়েবসাইট দেওয়া আছে:-

এটিও ভোলা উচিত না যে আপনার সন্তানের ক্ষেত্রে পড়া হল একটি আশ্চর্যজনক পড়া থেকে সাময়িক বিরতির বিস্ময়কর উপায় ও| বিশেষত পরীক্ষার সময় মস্তিষ্ককে তাজা রাখার উদ্দেশ্যে, ছাত্র-ছাত্রীদের নিয়মিত অন্তরালে পড়া থেকে সাময়িক বিরতি নেওয়া উচিত এবং সেই ক্ষেত্রে অধ্যয়নের চাইতে বেশি ভালো উপায় আর কি হতে পারে!